আজ ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ফুলতলায় আবারও বাড়লো কাঁচা মরিচের দাম

  • In সারাবাংলা
  • পোস্ট টাইমঃ ৫ জুলাই ২০২৩ @ ০৩:২৯ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ৫ জুলাই ২০২৩@০৩:২৯ অপরাহ্ণ
ফুলতলায় আবারও বাড়লো কাঁচা মরিচের দাম

।।ফুলতলা প্রতিনিধি।।

কাঁচামরিচ আমদানি শুরুর খবরে খুলনা জেলার ফুলতলা উপজেলার বাজার গুলোতে সোমবার কাঁচা মরিচের দাম কেজি প্রতি নেমেছিল ২০০ টাকায়। মঙ্গলবার দাম কিছুটা বেড়ে ৩০০ থেকে ৩২০ টাকায় উঠে যায়। এক দিনের ব্যবধানে এবার ৪০০ টাকা ছাড়িয়েছে এক কেজি কাঁচা মরিচের দাম। অনেক দোকান ঘুরে দেখা যায় সেখানে সব রকমের দ্রব্য থাকলেও কাঁচা মরিচ নেই।

এদিকে, মরিচের দাম এক রাতে বেড়ে যাওয়া নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতার মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। ক্রেতা সাধারণের অভিযোগ আমদানিকৃত মরিচ বাজারে এলেও সিন্ডিকেট করে দাম বাড়ানো হচ্ছে। আর ব্যবসায়ীরা বলছেন, বৃষ্টির কারণে দেশি মরিচের সরবরাহ কম থাকায় আমদানি দিয়ে দামে লাগাম টানা যাচ্ছে না। সরবরাহ কম হওয়াতে একদিনের ব্যবধানে পণ্যটির দাম কেজিপ্রতি ৮০ থেকে ১০০ টাকা বেড়ে গেছে। আজ সকালে উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ব্যবসায়ীরা এক পোয়া (২৫০ গ্রাম) কাঁচা মরিচ বিক্রি করছেন ১১০ টাকা। আর এক কেজি কিনলে দাম রাখা হচ্ছে থেকে ৩৮০ থেকে ৪০০ টাকা।

জামিরা বাজারের খুচরা ব্যবসায়ী বোরহান জানান, এখন পাইকারিতে প্রতি পাল্লা (৫কেজি) কিনতে হচ্ছে ১৭০০ থেকে ১৮০০ টাকায় এর মাঝে কিছুটা বাদ যাবে, গাড়ি ভাড়া আছে। এরপর যা থাকে সেটা লাভ হবে। দাম বাড়ার কথা স্বীকার করেছেন পাইকার ব্যবসায়ীরাও। ফুলতলা বাজারের ব্যবসায়ী আবুবকর জানান, সরবরাহ কম হওয়ার কারণে পাইকারিতেও কাঁচা মরিচের দাম আবারও বেড়েছে। কাঁচামালের দাম সরবরাহের উপর ওঠানামা করে থাকে। তবে ব্যবসায়ীদের কথা মানতে নারাজ সাধারণ ক্রেতারা। তাদের অভিযোগ ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটে বন্দি মরিচ। এ বিষয়ে বাজার করতে আসা দামোদর গ্রামের বাসিন্দা ওমর ফারুক বলেন, আমদানিকৃত মরিচ বাজারে এসেছে তাহলে দাম কমে আবার বাড়বে কেন?। নিশ্চয় ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কবলে পড়েছে রান্নার অতিপ্রয়োজনীয় মসলা জাতীয় পণ্যটি।

বাজারে অন্যান্য দ্রব্য মূল্যের দামও বাড়তির দিকে। বর্তমানে বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ৭০ টাকা, ইন্ডিয়ানটা ৪০ টাকা, দেশি রসুন ১৪০ টাকা, ইন্ডিয়ান রসুন ১২০ টাকা, পটল ২৮ টাকা কেজি, প্রতিকেজি মিষ্টি কুমড়া ২০ থেকে ২৫ টাকা, ঢেঁড়স ৩০ টাকা, চিচিঙা ৪০ থেকে ৫০ টাকা, বরবটি ২৫ থেকে ৩০ টাকা, করল্লা ৬০ থেকে ৮০ টাকা, পেঁপে ৪৫ থেকে ৫৫ টাকা, আলু ৩৫ থেকে ৪০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে ৮০, কাকরোল ৪০ টাকা, কলা প্রতি হালি ২৮ থেকে ৩২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights