আজ ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

চেন্নাই দুর্যোগে ৬০ ঘণ্টা পরে বাবার সঙ্গে কথা সুদর্শনের

  • In মাঠে ময়দানে
  • পোস্ট টাইমঃ ৯ ডিসেম্বর ২০২৩ @ ১১:১২ পূর্বাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ৯ ডিসেম্বর ২০২৩@১১:১২ পূর্বাহ্ণ
চেন্নাই দুর্যোগে ৬০ ঘণ্টা পরে বাবার সঙ্গে কথা সুদর্শনের

।।বিডিহেডলাইন্স ডেস্ক।।

দক্ষিণ আফ্রিকা পৌঁছনোর পরে সতীর্থদের সঙ্গে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন সুদর্শন। কিন্তু মা-বাবার সঙ্গে কথা বলতে না পেরে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েন তরুণ বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান।

ভারতের এক দিনের ক্রিকেট দলে সুযোগ পেয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা উড়ে গিয়েছেন সাই সুদর্শন। কিন্তু চেন্নাইয়ে রবিবার থেকে আছড়ে পড়া ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের তাণ্ডবে সমস্যায় পড়ে তাঁর পরিবার। প্রায় ৩ দিন বিদ্যুৎ না থাকায় ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিলেন না সুদর্শনের বাবা আর. ভরদ্বাজ। শেষমেষ শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) বিকেলে বিদ্যুৎ ফেরে ভরদ্বাজের বাড়িতে। রাস্তায় জমে থাকা জলও নেমে যায়। তার পরে ফোনে চার্জ দিয়ে ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ভরদ্বাজ।

দক্ষিণ আফ্রিকা পৌঁছনোর পরে সতীর্থদের সঙ্গে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন সুদর্শন। কিন্তু মা-বাবার সঙ্গে কথা বলতে না পেরে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েন তরুণ বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। সতীর্থদের সকলকে তাঁর অভিভাবকদের নম্বর দিয়ে ফোনে যোগাযোগ করার অনুরোধ করেন। শুক্রবার দক্ষিণ আফ্রিকার সময় অনুযায়ী বেলা ১টা নাগাদ বাবার সঙ্গে ফোনে কথা হয় সুদর্শনের। ঘনিষ্টমহলে তিনি বলেছেন, ‘আড়াই দিন পরে কথা হল বাবার সঙ্গে। অনেকটা হাল্কা লাগছে। ’

চেন্নাই থেকে সুদর্শনের বাবা আনন্দবাজারকে ফোনে বলছিলেন, ‘ছেলে ভারতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার উৎসবটা করতে পারলাম না। ওকে ছাড়তে কয়েক ঘণ্টার জন্য বেঙ্গালুরু গিয়েছিলাম মঙ্গলবার। কিন্তু শহরে ফিরে এসে দেখি ভয়ঙ্কর ছবি। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। বিদ্যুৎ ছিল না প্রায় তিন দিন। সাই-রা ঠিক মতো দক্ষিণ আফ্রিকা পৌঁছতে পেরেছে কি না সেই খোঁজই নিতে পারিনি। মনে হচ্ছিল একেবারে মোবাইল আবিষ্কার হওয়ার আগের প্রজন্মে চলে গিয়েছি।’ যোগ করেন, ‘‘আড়াই দিন পরে ওকে ফোনে পেলাম আজ। খুব হাল্কা লাগছে। ভারতীয় দলের অনেকেই আমাকে টেক্সট করে পরিস্থিতি জানতে চেয়েছে। তাদের সকলকে বলে দিতে চাই, আমরা এখন সুরক্ষিত।’’

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights