আজ ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

দিনাজপুরে ঢেপা নদীতে নিখোঁজের দুই দিন পর আরেকজনের মরদেহ উদ্ধার

  • In সারাবাংলা
  • পোস্ট টাইমঃ ৪ জুলাই ২০২৩ @ ০৩:৪১ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ৪ জুলাই ২০২৩@০৩:৪১ অপরাহ্ণ
দিনাজপুরে ঢেপা নদীতে নিখোঁজের দুই দিন পর আরেকজনের মরদেহ উদ্ধার

রফিক প্লাবন
দিনাজপুর।।

দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার কান্তনগর এলাকায় ঢেপা নদীতে নিখোঁজের দুই দিন পর পাওয়া গেছে আরেকজনের মরদেহ। মঙ্গলবার (৪জুলাই) সকাল ১১টার সময় বিরল উপজেলার ঘুঘুডাঙ্গা নামক স্থানের নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার হয়। পরে তার পরিবারকে খবর দিলে পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার হওয়া মরদেহটি মীম ইসলামের (১৬) বলে শনাক্ত করেন। মীম বীরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন পাল্টাপুর গ্রামের মৃত আমিনুল ইসলামের ছেলে। সে ভাদগাঁ শিক্ষা নিকেতনের দশম শ্রেনির ছাত্র ছিলেন।

বিরল থানার ওসি রেজাউল হাসান জানান, বেলা ১২ টার দিকে বিরল উপজেলার ঘুঘুডাঙ্গা নামক স্থানে স্থানীয়রা নদীতে একটি মরদেহটি ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। দুই দিন আগে শিক্ষার্থী নিখোজ হওয়া ওই পরিবারকে খবর দিলে পরিবারের লোকজন এসে মরদেহটি মীম ইসলামের বলে শনাক্ত করে। চাচা মো. সাহেব বাবু হাতে মীম ইসলাম এর মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। এর আগে রোববার (২ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২ টায় কাহারোল উপজেলার কান্তনগর এলাকার ঢেপা নদীতে গোসল করতে নেমে মো. মীম ইসলাম (১৬) ও মো. ইব্রাহিম ইসলাম (১৬) নামে দুই শিক্ষার্থী পানিতে তলিয়ে যায়। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তারা সম্পর্কে আপন মামা-ভাগিনা।

নিখোঁজের প্রায় ২২ ঘণ্টাপর সোমবার (৩জুলাই) সকাল ১০টার সময় বিরল উপজেলার ১২নং আজিমপুর বুড়িরহাট সংলগ্ন নশিপুর বুড়িরহাট এলাকায় নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার হয়। পরে তার পরিবারকে খবর দিলে পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার হওয়া মরদেহটি হাফেজ ইব্রাহীমের (১৫) বলে শনাক্ত করেন। ইব্রাহিম ইসলাম কাহারোল উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের উত্তর দীপনগর গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের একমাত্র ছেলে। সে দিনাজপুর শহরের নিউটাউন মাদ্রাসার হাফেজ এর ছাত্র ছিলেন।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights