আজ ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

পদযাত্রা হবে বিজয়ের, এই সরকারকে কেউ চায় না: মির্জা ফখরুল

  • In রাজনীতি
  • পোস্ট টাইমঃ ১৮ জুলাই ২০২৩ @ ০৪:২০ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ১৮ জুলাই ২০২৩@০৪:২০ অপরাহ্ণ
পদযাত্রা হবে বিজয়ের, এই সরকারকে কেউ চায় না: মির্জা ফখরুল

।নিজস্ব প্রতিবেদক।।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক দফা দাবিতে রাজধানীতে বিএনপির চলমান পদযাত্রাকে বিজয়ের যাত্রা বলে অভিহিত করে বলেছেন- এটা শুধু পদযাত্রা নয়। এটা জয়যাত্রা, বিজয়ের যাত্রা। এটা অধিকার আদায়ের বিজয়ের লক্ষে নির্ধারণের যাত্রা।

মঙ্গলবার (১৮জুলাই) সকালে রাজধানী গাবতলী থেকে ঢাকা মহানগর বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত পদযাত্রাপূর্ব সংক্ষপ্তি সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি। ফখরুল বলেন- শুধু বিএনপি নয়, ৩৬ রাজনৈতিক দল একযোগে ঘোষণা দিয়েছে, এই সরকারকে আর কেউ চায় না। সবাই নির্বাচন করতে চায়। আমরাও চাই। কিন্তু শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন করবো না।

তিনি আরো বলেন- আমরা পরিষ্কারভাবে বলে দিয়েছি, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন- সরকার গতকাল নির্বাচনের নামে তামাশা করেছে। আওয়ামী লীগের হাইব্রিড প্রার্থী ছিল। প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন হিরো আলম। তিনি আরও বলেন- হিরো আলম কোনো রাজনৈতিক দলের নেতা নন। তাকে পর্যন্ত গতকাল পেটানো হয়েছে। পুলিশ বলেছে- তারা তাদের কাজ করেছে। আর ইসি বলছে, সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে। এগুলো তামাশা। এসব তামাশা করে কোনো লাভ হবে না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন- ভোটাদের ভোটকেন্দ্রে নিতে পারে নাই। ভোট কেন্দ্র খালি ছিল। নির্বাচন কমিশনের মতে ১১ শতাংশ ভোট পড়েছে। ভোটগ্রহণ শুরুর ৫ ঘণ্টা পরে একজন ভোটার কেন্দ্রে গিয়েছে। তাকে নিয়ে লাফালাফি হয়েছে। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব আমিনুল হকের সঞ্চালনায় পদযাত্রাপূর্ব এই সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ড. মঈন খান, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম, জয়নুল আবেদিন ফারুক, মীর সরফত আলী সপু, নাজিম উদ্দিন আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশ শেষে বেলা ১১টা ২০ মিনিটে রাজধানী গাবতলী থেকে ঢাকা মহানগর বিএনপির উদ্যোগে দলটির পদযাত্রা শুরু হয়। বিএনপি’র এই পদযাত্রা গাবতলী, টেকনিক্যাল মোড়, মিরপুর(১), মিরপুর(১০) গোল চত্ত্বর, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, তালতলা (আগারগাঁও), বিজয় সরণী, কারওরান বাজার, এফডিসি, মগবাজার, মালিবাগ, কাকরাইল, নয়াপল্টন(পার্টি অফিস), ফকিরাপুল, মতিঝিল (শাপলা চত্ত্বর), ইত্তেফাক মোড় এবং দয়াগঞ্জ হয়ে রায়সাহেব বাজার মোড়ে গিয়ে শেষ হবে।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights