আজ ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১২ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

কাল ভিটামিন ‘এ প্লাস’ পাবে ২ কোটি ২০ লাখ শিশু

  • In স্বাস্থ্য
  • পোস্ট টাইমঃ ১৭ জুন ২০২৩ @ ১০:০৭ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ১৭ জুন ২০২৩@১০:০৭ অপরাহ্ণ
কাল ভিটামিন ‘এ প্লাস’ পাবে ২ কোটি ২০ লাখ শিশু

।।নিজস্ব প্রতিবেদক।।

দেশের সব সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র এবং অন্যান্য নির্ধারিত স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে একযোগে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে কাল রোববার। সারাদেশে এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ৬ মাস থেকে ৫৯ মাস পর্যন্ত বয়সী ২ কোটি ২০ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। তবে দুর্গম এলাকায় এই ক্যাম্পেইন চলবে টানা চার দিন।

ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের প্রচারণা উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, দেশের ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ২৫ লাখ শিশুকে, ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশু ১ কোটি ৯৫ লাখ শিশু সহ ১২-৫৯ মাস বয়সী মোট ২ কোটি ২০ লাখ শিশুকে লাল ও নীল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে মোট ৪০ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী, ১ লাখ ২০ হাজার কেন্দ্রে ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়াতে কাজ করবে।

প্রসঙ্গত, বরাবরের মতো এবারেও ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের যৌথ আয়োজনে রয়েছে জাতীয় পুষ্টিসেবা, জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ।

শুক্রবার জাতীয় পুষ্টি সেবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যখাতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। যার ফলে বাংলাদেশে অপুষ্টির হার কমেছে এবং শিশু ও মাতৃমৃত্যু উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে। শুধু দেশেই নয়, বিশ্ব নেতৃত্বের পুষ্টি ফোরাম। এছাড়াও বাংলাদেশ সারা বিশ্বের পুষ্টি পরিস্থিতি উন্নয়নে নেতৃত্ব দিচ্ছে।

জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে গৃহীত কার্যক্রমসমূহ বলা হয়, অবহিতকরণ করণ সভা, সিটি কর্পোরেশন, জেলা, উপজেলা ও পৌরসভা পর্যায়ে অবহতিকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্বেছাসেবী প্রশিক্ষণ: সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভায় ওয়ার্ড পর্যায়ে এবং উপজেলায় ইউনিয়ন পর্যায়ে স্বেচ্ছাসেবী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্র থেকে মাঠ পর্যায়ে লজিস্টিকস (ফোল্ডার, ব্রশিয়ার, টালি শীট, রিপোর্ট ফরম ইত্যাদি) প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল বিতরণ: কেন্দ্রীয় ঔষধাগার থেকে জেলা, সিটি কর্পোরেশন ও মাঠ পর্যায়ে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল প্রেরণ হয়েছে।

স্বেচ্ছাসেবী ও স্বাস্থ্যকর্মী সম্পর্কে তথ্য বলা হয়, ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে সর্বমোট কেন্দ্র সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার সর্বমোট স্বেচ্ছাসেবী সংখ্যা প্রায় ২ লাখ ৪০ হাজারসর্বমোট স্বাস্থ্যকর্মীর সংখ্যা প্রায় ৪০ হাজার নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়াও ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে শিশুর উপকারিতা সর্ম্পকে বলা হয়, অন্ধত্ব প্রতিরোধ করে, দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধি নিশ্চিত করে,সব ধরনের মৃত্যুর হার ২৪ শতাংশ হ্রাস করে, এছাড়াও হাম, ডায়রিয়া এবং নিউমোনিয়ার কারণে মৃত্যু উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস করে।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights