আজ ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত করে মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরাঃ অভিভাবকের স্ট্যাটাস নিয়ে তোলপাড়

পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত করে মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরাঃ অভিভাবকের স্ট্যাটাস নিয়ে তোলপাড়
ছবি- বিডিহেডলাইন্স

মোঃ বিপুল ইসলাম
স্টাফ রিপোর্টার।।

তিন ঘণ্টার পরীক্ষা ১ ঘণ্টায় নিয়ে বিভাগীয় সাহিত্য সম্মেলনে যেতে ছাত্র ছাত্রীদের বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে বিয়াম ল্যাবরটরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ (রংপুর) কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। বুধবার (১৪জুন) বেলা ১১টায় রংপুর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বিভাগীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে এমন অভিযোগ উঠে। বিভাগীয় সাহিত্য মেলা-২০২৩ উদ্বোধনী

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। বিভাগীয় কমিশনার হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব, বাংলা একাডেমি মহাপরিচালক, জেলা প্রশাসকসহ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কর্তারা অনুষ্ঠানে অংশ নেন। উক্ত ঘটনায় ক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘ফেসবুকে স্ট্যাটাস’ দিয়েছেন এক অভিভাবক আর এই নিয়েই তোলপাড় চলছে রংপুরে।

সরকারি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশ নেয়া এখন অনেকটাই কমন বিষয়। তবে বিষয়টি নিয়ে এবার ক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া দেখালেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদুল হক। বুধবার দুপুরে বেরোবি’র অধ্যাপক মাহমুদুল হকের ফেসবুক এ একটি স্ট্যাটাস দিয়ে লেখেন- “ভয়াবহ। পরীক্ষা বাদ দিয়ে রংপুর বিয়াম স্কুল এন্ড কলেজের বাচ্চাদের রংপুর বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। শিল্পকলা একাডেমিতে এখন প্রোগ্রাম চলছে। আজ আমার ছেলের সকাল ১০-১টা পরীক্ষা ছিল। এখন সে অনুষ্ঠানের দর্শক। এর দায় কে নিবে? বাচ্চাদের অনুষ্ঠানে নিয়ে যাওয়া এমনিতেই বেআইনি এর উপর ক্লাস পরীক্ষা বাদ দিয়ে।

সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদুল হকের ফেসবুক এই স্ট্যাটাস শোরগোল ফেলে দিয়েছে রংপুরে। এ বিষয়ে অধ্যাপক মাহমুদুল হক বলেন, আমার ছেলের তিন ঘণ্টার পরীক্ষা ছিল। কিন্তু এক ঘণ্টা পরীক্ষা নিয়েই ওদেরকে শিল্পকলা একাডেমিতে বিভাগীয় সাহিত্যমেলা প্রোগ্রামে নিয়ে গেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, বিভাগীয় কমিশারের চিঠির মাধ্যমে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিল প্রোগ্রামে নিয়ে যাওয়ার জন্য। ওদের পরীক্ষা চলছে তার মধ্যে থেকে তাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights