আজ ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল: কোচ হলেন লিটু’র পরিবর্তে টিটু

  • In মাঠে ময়দানে
  • পোস্ট টাইমঃ ১৯ জুলাই ২০২৩ @ ০৭:৩৬ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ১৯ জুলাই ২০২৩@০৭:৩৬ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল: কোচ হলেন লিটু’র পরিবর্তে টিটু

।।ক্রীড়া প্রতিবেদক।।

আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে চীনের হাংঝুতে অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ান গেমস। ওই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ নারী জাতীয় ফুটবল দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন সাইফুল বারী টিটু। তিনি স্থলাভিষিক্ত হবেন ভারপ্রাপ্ত কোচ মাহবুবুর রহমান লিটুর।

দীর্ঘ সময় মেয়েদের প্রধান কোচের ভূমিকায় থাকা গোলাম রব্বানী ছোটনের বিদায়ের পর সহকারী কোচ লিটুকে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। তার অধীনে সম্প্রতি নেপালের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ। এবার লিটুকে সরিয়ে টিটুকে করা হয়েছে সাবিনা খাতুন-রুপনা চাকমাদের প্রধান কোচ।

বুধবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নারী উইংয়ের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি গণমাধ্যমকে বলেছেন- আপনারা জানেন যে অনেক দিন থেকে আমাদের কোচ নেই। আমরা একটা খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি প্রায় সাত-আট মাস ধরে। ছোটন ভাই চলে গেছেন, এখন (টেকনিক্যাল ডিরেক্টর) পলও (স্মলি) চলে গেছেন। সামনে আমাদের দুটি টুর্নামেন্ট আছে। একটা হচ্ছে জাতীয় দলের এশিয়ান গেমস, আরেকটা হচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ নারী এশিয়ান কাপের বাছাইপর্ব। তো সামনের এশিয়ান গেমসের জন্য আমরা আজকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং টিটু ভাইকে প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব দিচ্ছি।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ছোটনের অধীনে ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশের মেয়েরা। প্রথমবারের মতো সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা ঘরে তোলে তারা। নেপাল থেকে ট্রফি নিয়ে দেশে ফেরার পর ছাদখোলা বাসে তাদের মহাসমারোহে বরণ করে নেওয়া হয়। কিন্তু সেই বিরাট অর্জনের আনন্দ দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। দলকে চ্যাম্পিয়ন করার মাত্র আট মাসের ব্যবধানে কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান ছোটন। অনেক অভিমান নিয়ে তিনি গত মে মাসের শেষদিকে বাফুফে’র কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। সেটা চলতি মাসের শুরুর দিকে গ্রহণ করে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

এশিয়ান গেমস চলবে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত। সেখানে নারী ফুটবলারদের সঙ্গে স্টাফ হিসেবে যাবেন চারজন। কিরণ জানিয়েছেন- প্রধান কোচ টিটুর সঙ্গী হবেন ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম বাবু, সহকারী কোচ মিরোনা খাতুন ও একজন ফিজিও।

নতুন দায়িত্ব পেয়ে দেশের অভিজ্ঞ কোচ টিটু বলেছেন- নতুন চ্যালেঞ্জের কথা, মেয়েদের সঙ্গে সেভাবে কাজ করা হয়নি। কেবল (জাতীয় দলের বর্তমান অধিনায়ক)সাবিনা-মিরোনাদের এএফসি “সি” লাইসেন্স কোর্স পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। অবশ্যই, এটা একটা নতুন চ্যালেঞ্জ হবে। এই মেয়েরা অনেক পরিশ্রমী ও শৃঙ্খলাবদ্ধ। তবে সামনাসামনি কাজ করলে আসলে বুঝতে পারব যে, আর কী কী করতে হবে আমাকে।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights