আজ ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ব্রিটিশ হাইকমিশারকে সেতুমন্ত্রীর প্রশ্ন: আপনাদের দেশে কি নির্বাচনের সময় সরকার পদত্যাগ করে

  • In জাতীয়, শীর্ষ
  • পোস্ট টাইমঃ ২০ জুলাই ২০২৩ @ ০৭:০৩ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ২০ জুলাই ২০২৩@০৭:০৩ অপরাহ্ণ
ব্রিটিশ হাইকমিশারকে সেতুমন্ত্রীর প্রশ্ন: আপনাদের দেশে কি নির্বাচনের সময় সরকার পদত্যাগ করে
ছবি- ফাইল ছবি

।।নিজস্ব প্রতিবেদক।।

যুক্তরাজ্যের নির্বাচন পদ্ধতি নিয়ে ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ ক্যাথেরিন কুকের কাছে জানতে চেয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। বৃহস্পতিবার (২০জুলাই) রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনে ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ কুকের সঙ্গে বৈঠকে বিষয়টি জানতে চান কাদের।

সংবাদ সম্মেলনে বৈঠকের বিষয়বস্তু সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ হাইকমিশনার প্রতিনিধিত্বমূলক নির্বাচনের কথা বলেছেন। এ ছাড়া গুলশানে (উপনির্বাচন) ভায়োলেন্স নিয়ে কথা হয়েছে। তিনি হাইকমিশনারের কাছে জানতে চান, নির্বাচনের সময় তাঁদের দেশে প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করেন কি না, কিংবা পার্লামেন্ট বিলুপ্ত হয় কি না? ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনাদের (ব্রিটেন) নির্বাচন কেমন হয়, প্রধানমন্ত্রী কি পদত্যাগ করেন এবং হাউস অব কমন্স কি বিলুপ্ত হয়?’

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের প্রতিনিধিত্বমূলক নির্বাচনের প্রত্যাশা সম্পর্কে ওবায়দুল কাদেরের জবাব কী ছিল—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘আমেরিকানদের যা বলেছি, ইউরোপীয় ইউনিয়নকে যা বলেছি, ব্রিটিশ হাইকমিশনারকেও তা-ই বলেছি। আমাদের বক্তব্য অভিন্ন। যেভাবে ইলেকশন হবে, তা নিয়ে কথা বলেছি।’

বিএনপির দাবির মতো বিদেশি হাইকমিশনারদের বক্তব্য একই রকম কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপির দাবি, সরকারের পদত্যাগ ও তত্ত্বাবধায়কের অধীনে নির্বাচন। কিন্তু কীভাবে নির্বাচন হবে, সেটা নিয়ে তাদের (ব্রিটিশ) কোনো বক্তব্য নেই। তারা প্রতিনিধিত্বমূলক নির্বাচন চায়।’ এ সময় বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিকে অদ্ভুত ও উদ্ভট বলেও আখ্যা দেন তিনি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় আসতে পারে এমন ব্যবস্থা ছাড়া নির্বাচনে আসতে চায় না। তাদের হেরে যাওয়ার ভয় আছে। জনগণ যাকে ভোট দেবে, সে-ই ক্ষমতায় যাবে।’ নির্বাচন কমিশনের স্বাধীনতা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের সময় কমিশন স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালন করবে। আর সরকার রুটিন দায়িত্ব পালন করবে। তারা কোনো মেজর পলিসি ডিসিশন নিতে পারবে না, সেটা বাস্তবায়ন করতে পারবে না। আর্থিক, রেগুলেটরিসহ অনেক বিষয়ে কমিশন স্বাধীন।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights