আজ ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

পর্ণোগ্রাফিক সাইটে আমন্ত্রণ জানিয়ে ব্ল্যাকমেইল, এ চক্রের ১২ সদস্যকে আটক

  • In আইন ও অপরাধ, সারাবাংলা
  • পোস্ট টাইমঃ ৩ ডিসেম্বর ২০২৩ @ ০৭:১৫ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ৩ ডিসেম্বর ২০২৩@০৭:১৫ অপরাহ্ণ
পর্ণোগ্রাফিক সাইটে আমন্ত্রণ জানিয়ে ব্ল্যাকমেইল, এ চক্রের ১২ সদস্যকে আটক

নাজমুস সাকিব
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।

দেশী বিদেশী সুদর্শন নারী পুরুষের ফেইক আইডি খুলে বন্ধুত্ব স্থাপন করে তারা। একপর্যায়ে সম্পর্ক গভীর তৈরি হলে একাধিক পর্ণোগ্রাফিক সাইটে আমন্ত্রণ জানিয়ে সেখানে দুর্বল মুহুর্তের ছবি ও ভিডিও ধারণ করা হয়। তারপর ব্ল্যাকমেইল শুরু করে। অবশেষে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের জালে আটকে গেলো চক্রটি।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফারুক হোসেন। এ চক্রের ১২ সদস্যকে আটক করা হয়েছে, উদ্ধার করা হয়েছে ৪ টি ল্যাপটপ, ২টি মোবাইলসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ডিভাইস।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মো: হাসান আলী (২৩), মোঃ সবুজ খান (২০), মোঃ সজল (২৩), মোঃ হুসেন আলী (২১), মোঃ মনির হোসেন (২৩), মোঃ জুয়েল মিয়া (২১), মোঃ নাজিম উদ্দিন (২৪), মোঃ রানা মিয়া (২১), হুমায়ুন কবির (২৯), মোঃ আরিফুল ইসলাম (২০), মোঃ মাজহারুল ইসলাম (২০), মোঃ জাকারিয়া (২৫)। তারা সবাই টাংগাইল জেলার বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

জেলা পুলিশ সুপার মো মাছুম আহাম্মদ ভূঞা জানান, প্রথমে দেশী-বিদেশী সুদর্শন তরুণ-তরুণীর ছবি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইক আইডি খুলে। তারপর নানা বয়সী বিপরীত লিঙ্গের মানুষদের সাথে বন্ধুত্ব স্থাপন করে প্রতারক চক্রের সদস্যরা। একপর্যায়ে গভীর সম্পর্ক তৈরি হলে তাদেরকে একাধিক পর্ণোগ্রাফিক সাইটে আমন্ত্রণ জানায়। চক্রটি সেখানে ভুক্তভোগীদের দুর্বল মুহুর্তের ছবি ও ভিডিও ধারণ করে। পরবর্তীতে এসব ছবি ও ভিডিও দিয়ে তাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করে বড় অঙ্কের অর্থ আত্মসাত করে নিতো। অন্যদিকে পর্নোগ্রাফিক ভিডিও সংরক্ষণ, অশ্লীল ছবি ও ভিডিও আদান-প্রদান, বিক্রয়, বিতরণ ও সরবরাহ করে যুব সমাজের নৈতিক অবক্ষয় ও গণ-উপদ্রব সৃষ্টি করতো।

পুলিশ সুপার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার মধ্য রাতে ময়মনসিংহ নগরীর কেওয়াটখালী পাওয়ার হাউস রোডের এলাকায় অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশ। একটি তিনতলা ভবনের নিচতলার পশ্চিম পাশের কক্ষে অনলাইনে পর্নোগ্রাফি সম্পর্কিত প্রতারক চক্রের ওই ১২ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে পর্নোগ্রাফিক সাইট পরিচালনা ও সংরক্ষণ করার ৪ টি ল্যাপটপ, ২ টি স্মার্টফোন ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিকস ডিভাইস উদ্ধার করা হয়েছে।

অনলাইনে অপরিচিত কারো সাথে সম্পর্ক স্থাপন এবং প্রলোভিত না হওয়ার আহ্বান জানান পুলিশ সুপার মো মাছুম আহাম্মদ ভূঞা। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights