আজ ২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ এবং ১৯শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

কক্সবাজারে রেল: ইজিবাইকের ভাড়া রাতারাতি দ্বিগুণ!

  • In সারাবাংলা
  • পোস্ট টাইমঃ ২ ডিসেম্বর ২০২৩ @ ০৬:০২ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ২ ডিসেম্বর ২০২৩@০৬:০২ অপরাহ্ণ
কক্সবাজারে রেল: ইজিবাইকের ভাড়া রাতারাতি দ্বিগুণ!

শাহীন মাহমুদ রাসেল
কক্সবাজার প্রতিনিধি।।

কক্সবাজারে ট্রেন চালু হতে না হতেই হঠাৎ করে ইজিবাইক ভাড়া বাড়িয়ে দ্বিগুণ করেছে। আর এই সুযোগে গাড়ি চালকেরা যাত্রীদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন ভাড়ার দ্বিগুণ টাকা। এটি জানাজানি হওয়ার পর থেকে জেলাব্যাপী শুরু হয়েছে তীব্র সমালোচনা।

জানা গেছে, কক্সবাজার সদরের ঝিলংজায় অবস্থিত আইকনিক রেল স্টেশনটি লিংক রোড় থেকে অনুমানিক ২০০ মিটার আগে অবস্থিত। আর ট্রাফিক পুলিশের অ্যাপের কারণে এখান থেকে ইজিবাইকে যাত্রী বহনে ৩০ টাকা অতিরিক্ত নেয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে ইজিবাইক রিজার্ভ করে যাওয়ার ভাড়া দীর্ঘদিন ধরে ১৫০ টাকা থাকলেও তা করা হয়েছে ২০০ টাকা।

কক্সবাজার শহরের প্রবেশমুখ লিংক রোড় থেকে প্রধান সড়ক হয়ে শহরের লালদিঘীর পাড়া, অথবা বাইপাস হয়ে কলাতলীর মোড় পর্যন্ত ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক (টমটম) ভাড়া ছিল ২০ টাকা। এই অবস্থায়, রেল আসাকে কেন্দ্র করে ট্রাফিক পুলিশের চালু করা ‘কক্স-ক্যাব’ নামের অ্যাপে এই ভাড়া এখন জনপ্রতি অতিরিক্ত ৩০ টাকা বাড়িয়ে ৫০ টাকা করা হয়েছে। যা নিয়ে জেলাব্যাপী তীব্র সমালোচনা চলছে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, ট্রেনে কক্সবাজারে আসা পর্যটকদের রেল স্টেশন থেকে কক্সবাজার শহরে আসাকে নির্বিঘ্ন ও হয়রানি মুক্ত করতে কক্স-ক্যাব (টমটম) এর ভাড়া নির্ধারণ করে দিয়েছে কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশ। কক্সবাজার শহরে কলাতলী পর্যন্ত কক্স-ক্যাব (টমটম) এর ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে জনপ্রতি ৫০ টাকা এবং রিজার্ভ ২০০ টাকা।

নিরাপদ ও পর্যটন-বান্ধব ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা গড়ার লক্ষ্যে এমন উদ্যোগ এবং নিরাপদ ও স্বাচ্ছন্দময় ভ্রমণের জন্য কক্স-ক্যাব নিবন্ধিত চালকদের গাড়ি (টমটম) ব্যবহার করার আহ্বান জানান মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ প্রসঙ্গে খোরশেদ আলম নামের এক যুবক লেখেছেন, কলাতলীর মোড় হয়ে রেল স্টেশনে শুক্রবার সকালেও ১০ টাকা জনপ্রতি ভাড়া নিয়ে অনেকে গেছেন। এটা ৫০ টাকা করার কারণ কি?

আবাসিক হোটেল কর্মকর্তা করিম উল্লাহ লিখেছেন, লিংক রোড পর্যন্ত দীর্ঘদিন ধরে ভাড়া ২০ টাকা। এটা ৫০ টাকা করেছে ট্রাফিক পুলিশ। অথচ ভাড়া তো আগের পৌরসভা থেকে নির্ধারণ করা ছিল।

এভাবে ভাড়া বাড়ানোকে ‘অযৌক্তিক এবং হাস্যকর’ সিদ্ধান্ত বলে মন্তব্য করেছেন সংবাদকর্মী তারিকুল ইসলাম।

এ প্রসঙ্গে কক্সবাজার থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট তাপস রক্ষিত জানান, ২০ টাকার ভাড়া ৫০ টাকা নির্ধারণের কোন কারণ থাকতে পারে না। এ সিদ্ধান্ত দ্রুত বাতিল করে পূর্বের ভাড়া নির্ধারণ করতে হবে।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মো. মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী জানান, ইজিবাইক-সহ অন্যান্য পরিবহনের ভাড়া আগে থেকে পৌরসভা নির্ধারণ করে রেখেছে। লিংক রোড থেকে কলাতলী বা লিংক রোড় থেকে কক্সবাজার শহর ভাড়া জনপ্রতি ২০ টাকা।

তবে এ ভাড়া ট্রাফিক পুলিশ নির্ধারণ করেনি বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. রফিকুল ইসলাম।

তিনি জানান, অ্যাপটি চালু করা হয়েছে। নিবন্ধন করা হয়েছে চালকদের। অ্যাপের মাধ্যমে চালকরাই এ ভাড়া নির্ধারণ হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে যেহেতু আলোচনা হচ্ছে- তাই এপ্রসঙ্গে পরে (নতুন করে) সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights