আজ ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ও ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ এবং ১৬ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

বাংলাদেশের সেরা জয়ঃ ৫৪৬ রানের রেকর্ড, টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের ৩য় বড় জয়

  • In জাতীয়, মাঠে ময়দানে
  • পোস্ট টাইমঃ ১৭ জুন ২০২৩ @ ০১:১৬ অপরাহ্ণ ও লাস্ট আপডেটঃ ১৭ জুন ২০২৩@০১:২০ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশের সেরা জয়ঃ ৫৪৬ রানের রেকর্ড, টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের ৩য় বড় জয়

।।ক্রীড়া প্রতিবেদক।।

আফগানিস্তান: দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৩ ওভারে ১১৫/১০ (নিজাত ৪; জহির ৪ (রি/হা) আহমাদজাই ১, হামজা ৫, করিম ১৮, রহমত ৩০, বাহির ৭, আফসার ৬, নাসির ৬, হাশমতউল্লাহ ১৩ (রি/হা), মালিক ৫, জাদরান ০) লক্ষ্য- ৬৬২ রান।
ফলাফলঃ বাংলাদেশ ৫৪৬ রানে জয়ী। বাংলাদেশ: দ্বিতীয় ইনিংসে ৮০ ওভারে ৪২৫/৪ ডিক্লে. (মুমিনুল ১২১*, লিটন ৬৬*; মুশফিক ৮, শান্ত ১২৪, জাকির ৭১, জয় ১৭)

আফগানিস্তান: প্রথম ইনিংসে ৩৯ ওভারে ১৪৬ (জহির ০*: করিম ২৩, নিজাত ০, ইয়ামিন ০, আমির ৬, আফসার ৩৬, জামাল ৩৫, হাশমতউল্লাহ ৯, রহমত ৯, মালিক ১৭, ইব্রাহিম ৬)

বাংলাদেশ: প্রথম ইনিংসে ৮৬ ওভারে ৩৮২ (এবাদত ০*; শরিফুল ৬, তাসকিন ২, তাইজুল ০, মুশফিক ৪৭, মিরাজ ৪৮, লিটন ৯, শান্ত ১৪৬, মুমিনুল ১৫, জয় ৭৬, জাকির ১)

মিরপুরে পরিকল্পনা মতো জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। একমাত্র টেস্টে স্বাগতিকদের ৬৬২রানের বিশাল লক্ষ্যের পর আফগানদের প্রতিরোধ দ্রুত ভেঙে দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল। আগের দিন দুই উইকেট তুলে নেওয়ার পর চতুর্থ দিন সকালে প্রথম ঘণ্টাতেই ৩উইকেট নিয়ে জয় তরান্বিত করেছেন এবাদত, শরিফুল। শরিফুল জোড়া আঘাতে আফগানদের চেপে ধরেন। তাসকিনও উইকেট উৎসবে যোগ দিলে প্রথম সেশনে ১১৫রানেই শেষ হয় সফরকারীদের ইনিংস। শেষ উইকেটে জহির রিটায়ার্ড হলে আফগানদের ইনিংস সমাপ্ত হয়েছে সেখানেই। তাতে ৫৪৬রানের রেকর্ড গড়া জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের।

বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসে এটি রানের হিসেবে সবচেয়ে বড় জয়। শুধু কি তাই? ৮৯বছরের মধ্যে টেস্ট ক্রিকেটেও এটি সব চেয়ে বড় জয়। ১৪৬বছরের টেস্ট ইতিহাসে রানের হিসেবে এর চেয়ে বড় জয় আছে দুটি। ১৯২৮সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬৭৫রানে জিতেছে ইংল্যান্ড। ১৯৩৪সালে অস্ট্রেলিয়াও ইংল্যান্ডকে ৫৬২রানে হারিয়েছে। তার পর অবস্থান বাংলাদেশের।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৭রানে ৪উইকেট নিয়েছেন তাসকিন। যা তার ক্যারিয়ার সেরা। অবশ্য ৩৩ ওভারে তিনি পাঁচ উইকেটও পেতে পারতেন। কিন্তু ভাগ্য সহায় ছিল না তার। তাছাড়া ২৮রানে ৩উইকেট নিয়েছেন শরিফুল। একটি করে নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও এবাদত হোসেন। অবশ্য পেসাররা মিলে আরেকটি রেকর্ডও গড়েছেন। পুরো ম্যাচে পেসারদের শিকার ছিল ১৪উইকেট। এক ম্যাচে বাংলাদেশি পেসারদের যা সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের নজির। সর্বশেষ নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে গত বছর পেসাররা মিলে ১৩উইকেট নিয়েছিলেন।

নিউজ শেয়ারঃ

আরও সংবাদ

জনপ্রিয় সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আলোচিত সংবাদ

নিউজ শেয়ারঃ
শিরোনামঃ
Verified by MonsterInsights